দিল্লি নির্বাচনের ফলাফল: দিল্লি নির্বাচনে কেজরিওয়ালের জয়ের পাঁচটি বড় কারণ

0
16

দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফলগুলি প্রমাণ করেছে যে অরবিন্দ কেজরিওয়াল পর পর তৃতীয়বারের মতো দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হতে চলেছেন। নির্বাচনে আম আদমি পার্টির জয়ের অনেক কারণ রয়েছে।

1-কেজরিওয়ালের ক্যারিশম্যাটিক ফেস – দিল্লিতে আম আদমি পার্টির বড় জয়ের সবচেয়ে বড় কারণ হ’ল নির্বাচনের মুখে কেজরিওয়াল ওয়াকওভার পান। পুরো নির্বাচনের সময় আম আদমি পার্টি কেজরিওয়ালের ক্যারিশম্যাটিক মুখকে ইস্যু বানিয়ে প্রচুর নগদ অর্জন করে এবং বিজেপিকে প্রকাশ্যে চ্যালেঞ্জ জানায়। মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল নিজেই বিজেপিকে মুখের ইস্যুতে একটি উন্মুক্ত চ্যালেঞ্জ দিয়েছিলেন এবং পুরো নির্বাচনে বিজেপি কোনও বিরতি খুঁজে পায়নি।

2- নিখরচায় নির্বাচন ট্রাম্প কার্ড – দিল্লির নির্বাচনে আম আদমি পার্টির জয়ের সবচেয়ে বড় ট্রাম্প কার্ড হ’ল কেজরিওয়াল সরকারের শেষ 5 বছরে বিনামূল্যে দিল্লির মানুষের মৌলিক চাহিদা সরবরাহ করা। এর পাশাপাশি, ভোট দেওয়ার ঠিক আগে এএপি দ্বারা প্রকাশিত নির্বাচনী ইশতেহারে, দিল্লির জনগণের কাছে এই জাতীয় বহু জনসমর্থনমূলক প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল যা মানুষকে একবার আম আদমি পার্টির দিকে ঘুরিয়ে দেয়।

3- কেজরিওয়ালের পরিষ্কার চিত্র – দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের পরিষ্কার চিত্রও তার জয়ের বড় কারণ হিসাবে প্রমাণিত। জনগণের মধ্যে পুরো নির্বাচনী প্রচারে মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালের পরিষ্কার চিত্রটি আম আদমি পার্টি খালাস করেছিল এবং এখন ফলাফলগুলি দেখায় যে জনগণ এতে তাদের স্ট্যাম্প চাপিয়ে দিয়েছিল।

৪ – প্রধানমন্ত্রী মোদীকে আক্রমণ না করার জন্য – দিল্লির আম আদমি পার্টি তার নির্বাচনী কৌশলে এই সতর্কতা অবলম্বন করেছিল যে এর নেতাদের কেউই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উপরে রাজনৈতিক আক্রমণ চালাতে না পারে। মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল নিজেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিয়ে কোনও বিতর্কিত বক্তব্যই নির্বাচনে দেননি, যা এএপিকে উপকৃত করেছে এবং বিজেপি সমস্ত চেষ্টা করেও মোদীর মুখে নির্বাচন আনতে পারেনি।

৫. বিতর্কিত বক্তব্য এবং ইস্যু থেকে কেজরিওয়ালের নিষেধাজ্ঞা – দিল্লিতে আম আদমি পার্টির জয়ের মূল কারণ ছিল মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়ালের বিতর্কিত বিষয় থেকে দূরে থাকা। দিল্লি নির্বাচনে সর্বাধিক আলোচিত শাহীন বাঘের ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল প্রায় নীরব ছিলেন। নির্বাচনে, যেখানে বিজেপি নেতারা বিতর্কিত বক্তব্য রেখেছিলেন, কিন্তু আম আদমি পার্টির একটিও বিতর্কিত বক্তব্য তার নির্বাচনের কৌশল দেখায় না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here